অস্থির হৃদয় প্রশান্তকারী – Shorobor
সরোবর, একটি তারামানুষ... অন্তত

অস্থির হৃদয় প্রশান্তকারী

যব, ছোলা আর চালের ছাতু দিয়ে বানানো একটা চমৎকার খাবার হচ্ছে সরোবরের তালবিনা। মূলত যব দিয়ে তালবিনা তৈরি হলেও। স্বাদের কারণে অনেকেই খেতে না পারায় সরোবর এর সাথে যুক্ত করেছে ছোলা আর চালের গুঁড়া।

যাই হোক আসল কথায় আসি- ‘তালবিনা’ রুগ্ন ব্যক্তির হৃদয়ে প্রশান্তি আনে এবং শোক দুঃখ কিছুটা দূর করে। না আমার কথা না এটা। আমাদের প্রিয় রাসুল সা. বলেছেন কথাটা।

এ এক আশ্চর্যজনক খাবার। শুধু খাবার বলবে ভুল হবে, এ যেন এক বিস্ময়কর ঔষধ। পাকস্থলী এবং অন্ত্রতে আলসারের রোগীদের সকালের নাস্তায় নবী সাল্লালাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের সময়ে উন্নত মানের ব্যবস্থাপত্র হিসেবে তালবিনা দেয়া হতো।

এতে আলসারের প্রতিটি রুগী ২ থেকে ৩ মাসের মধ্যে আরোগ্য লাভ করত। যদি রসুল সাল্লালাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের পরিবারের কেউ অসুস্থ হয়ে পড়ত, তিনি বলতেন, তালবিনা শোকাতুর হৃদয়কে শান্ত করে আর অসুস্থ হৃদয়কে সেভাবে পরিষ্কার করে যেভাবে তোমরা মুখ থেকে নোংরা ধুয়ে ফেল।

এই খাবার কোলেস্টেরল কমায়, পেটের জ্বালা-পোড়া কমায়, হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়, রক্তের সুগার ধীরে ধীরে বাড়ে, ফলে ডায়াবেটিক রোগের জন্য উপকারী, উচ্চ রক্তচাপ কমায়, কিডনি রোগীদের জন্য উপকারী। অসুস্থ, দুর্বল রোগীদের শক্তিদায়ক পথ্য হিসেবে, শিশুদের প্রয়োজনীয় আঁশ, আমিষ এবং খনিজ পদার্থ যোগান দেয় এই তালবিনা।

সব বয়সী মানুষদের খাদ্যাভাসে তালবিনা ফিরিয়ে আনতে পারলে বেশ হয়। এতে করে সেই খাদ্যাভ্যাস কিছুটা হলেও ফিরে আসবে যা নিয়ে রসুলুল্লাহ সাল্লালাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম থেকে প্রায় একুশটা হাদীস পাওয়া যায়।

Share this post