উচ্চরক্তচাপ ও হার্টের অসুখে ধনিয়া গুঁড়া

আমরা রান্নায় মসলা কেন খাই? মসলা শুধুই কি ঘ্রাণ ও স্বাদ বর্ধক? আসলে ব্যাপারটি তা নয়। নিত্যদিনের ব্যবহৃত প্রতিটি মসলায় রয়েছে অসংখ্য উপকারিতা। এসব মসলায় থাকা শত শত উপাদান আমাদের শরীরকে সুস্থ রাখতে ভূমিকা রাখে, আমাদের শরীরে প্রয়োজনীয় বিভিন্ন উপাদান সরবারাহ করে।

আজ চলুন, ধনিয়ার গুঁড়ো নিয়ে কথা বলি। ধনিয়া ব্লাড সুগার কমাতে সহায়তা করে। এটি কিছু এনজাইমকে অ্যাক্টিভেট করে রক্তে থাকা সুগার কমায়। আসলে এটি এতই শক্তিশালী যে যাদের লো ব্লাড সুগার আছে, তাদের সতর্কতার সাথে ধনিয়া খাওয়া উচিৎ। ধনিয়াতে কয়েকধরণের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে যা কোষকে ফ্রি র‍্যাডিকাল থেকে হওয়া ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করে। এটি রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতাকে শক্তিশালী করে, ক্যান্সার, ইনফ্লামেশন এসবের বিরুদ্ধে লড়াই করে। ধনিয়া ব্যাড কোলেস্টেরল কমিয়ে গুড কোলেস্টেরল এর পরিমাণ বাড়ায়। উচ্চরক্তচাপ কমায় ও হার্টের অসুখ দূর করে। মাথাব্যথা কমিয়ে, স্মৃতিশক্তি ভালো রাখায় ধনিয়ায় থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ভূমিকা রাখে।

এছাড়া ধনিয়া ইনফেকশন কমায়, হজমে সহায়তা করে এমন কি ত্বকের সুস্বাস্থ্যও নিশ্চিত করে। আমরা ধনিয়া গুঁড়ো ব্যবহার করার সময় কি এত উপকারিতার কথা ভাবি কখনো? – মনে হয় না। ধনিয়ার সমস্ত উপকারিতা তখনই পাবেন যখন আপনার ব্যবহৃত ধনিয়া গুঁড়ো হবে সম্পূর্ণ নিরাপদ, কৃত্রিম রঙ, গন্ধ ও ঘাসের বীজমুক্ত। ব্যবহৃত ধনিয়ার গুঁড়োতে কেবল ধনিয়াই থাকবে এমন গুঁড়ো পাবেন আপনাদের আস্থার জায়গা সরোবরে।

X