চৌধুরি সাহেবের বিড়ম্বনা

চৌধুরি সাহেব বেশ বিপদে পড়েছেন। তার নামের সাথে চৌধুরি থাকায় লোকজন দুষ্টুমি করে তাকে প্ল্যান বি চৌধুরি বলে ডাকছে। তিনি যে খুব সাধাসিধে মানুষ – রাজনীতি বোঝেন না, তা নয়। তবে তিনি রাজনীতি নিয়ে অনর্থক তর্ক পছন্দ করেন না।

ঘটনার শুরু আজ সকালে। অফিসে দুপুরের লাঞ্চ ব্রেকে কথা হচ্ছিল খাবারে তৃপ্তি নিয়ে। ছোটোবেলায় শুধু আলুভর্তা ঘি ভাত দিয়ে থালার পরে থালা ভাত খাওয়া যেত – এখনকার ঘিতে সেই তৃপ্তি আসে না – বলছিলেন একজন।

চৌধুরি সাহেব জ্ঞান প্রকাশের আকাংখা দমন করতে না পেরে বলে ফেললেন,
শুনুন খাঁটি ঘি তৈরি করা যায় দুই ভাবে,
প্ল্যান এ: দুধ থেকে সর উঠিয়ে সেটা ফারমেন্ট করে তা থেকে।
প্ল্যান বি: দুধের ক্রিম বা বাটার সরাসরি জ্বাল দিয়ে।

আগের দিন ঘি তৈরি হতো প্ল্যান এ দিয়ে।
আজকালের ঘি তৈরি হয় প্ল্যান বি দিয়ে।

প্ল্যান এ তে ভেজাল দেওয়া হতো না – সবই বাসায় করা। কিন্তু প্ল্যান বি-তে ভেজাল দেওয়ার বিশাল সুবিধা আছে।
এমনকি একই গরুর সকালের দুধ আর বিকালের দুধের ক্রিমের মধ্যেও ফারাক থাকে।

একদমে কথাগুলো বলে চৌধুরি সাহেব থামলেন। এরপর বললেন, ভালো জিনিস খেতে চাইলে নিজে বাসায় ঘি বানান।
আর কেনা ঘি এর মধ্যে সরোবরের সামনা-টা খেয়ে দেখতে পারেন – এরা সম্ভবত সবচেয়ে ভালো বাটারফ্যাট ব্যবহার করে। স্বাদ এবং টেক্সচার প্ল্যান এ -এর সমান সমান।

মানুষকে ভালো একটা বুদ্ধি দিলেন – নতুন কিছু শেখালেন – কোথায় মানুষ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করবে তা নয় এরা তাকে প্ল্যান বি চৌধুরি বলে খেপাচ্ছে। আসলে বাঙালির ভালো করতে নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

X