শিশুর মস্তিস্কের বিকাশে সামনা

২-৫ বছর বয়সী বাচ্চাদের অঙ্গপ্রত্যঙ্গসমূহ বিকশিত হতে থাকে ক্রমান্বয়ে। এই সময়ে তাই তাদের স্বাস্থ্যসম্মত খাবার দিতে হবে। মস্তিষ্কের বিকাশও এই সময়টাতেই হয়ে থাকে। ব্রেইন ডেভেলপমেন্ট এর এই প্রক্রিয়ায় প্রচুর পরিমাণে ফ্যাট বা স্নেহ জাতীয় পদার্থের প্রয়োজন হয়। অনেকেই এই সময়ে বাচ্চাদের জন্য তেল ছাড়া খাবার রান্না করেন। বা কেউ কেউ তেল ব্যবহার করলেও বাচ্চার বিকাশে সহায়ক হবে এমন স্বাস্থ্যকর তেল রাখেন না।

বাজারে প্রচলিত রিফাইন্ড, এক্সট্রা ফ্লেভার ও কালারযুক্ত তেল ব্যবহার করে থাকেন। গুড ফ্যাটের বিকল্প আসলে খোঁজা উচিতই না। গুড ফ্যাটের বিকল্প গুড ফ্যাট নিজেই। এটি ছোট বড় সকলের জন্য ভালো। আর এমনই এক গুড ফ্যাট হলো ঘি। ২-৫ বছরের বাচ্চাদের খাবারে যদি প্রতিদিন এক চা চামচ করে ঘি যোগ করা যায় তাহলে তা বাচ্চার মস্তিষ্ক বিকাশ সহ অন্যান্য অনেক উপকারই করবে। এছাড়া ঘি অতি উচ্চতাপমাত্রায় রান্না করলেও গুণাগুণ প্রায় অক্ষুণ্ণই থাকে৷ যেখানে অন্যান্য তেলের গুণাবলী উচ্চ তাপে নষ্ট হয়ে যায়।

বেশি তাপে যেসব ভাজাপোড়া করা হয় সেসব রান্নায় ঘি ব্যবহার করা যেতে পারে। আর ঘি খাবারে যে মন মাতানো ঘ্রাণ ও স্বাদ যোগ করে তা তো আলাদা করে বলার কিছু নেই। অনেক সময় এই বাড়তি স্বাদের কারণে বাচ্চারা ঘি দেওয়া খাবার খেতে পছন্দ করে।আসছে কুরবানির ঈদ! মাংস ছাড়াও রান্না হবে হরেক পদ৷ লাচ্ছা সেমাই, সুজি, হালুয়া, মিষ্টি, পিঠা, বিরিয়ানি ঘি ছাড়া জমে না। আর বর্ষার বৃষ্টি স্নাত ঠান্ডা আবহাওয়ায় তো গরম ভাতে ঘি যোগ করে অন্যরকম ভালো লাগা। আপনার সন্তানের জন্য খাঁটি ঘি আপনাদের প্রিয় সরোবরেই আছে। যাকে আমরা সামনা নামে ডাকি। তো আর দেরি কেন, অর্ডার করুন ঝটপট।

X